Below Header Banner Area
Above Article Banner Area

“বঙ্গপ্রদেশ” বঙ্গবন্ধু সাহিত্য সম্মেলন দীঘা , পশ্চিম মেদিনীপুর , পশ্চিমবঙ্গ , ভারত – ২০১৯

গ্রামীণ উন্নয়নে মানববিকাশ : ভারত – বাংলাদেশ – এর উদ্যোগ । গ্রামীণ উন্নয়ন আমরা সবাই চাই । কিন্তু কীভাবে হবে ? গ্রামীণ উন্নয়ন ধারণা বহুমাত্রিক । অর্থনৈতিক , সাংস্কৃতিক , সামাজিক , পরিকাঠামােগত ইত্যাদি উন্নয়ন গ্রামাঞ্চলে ত্বরিত গতিতে হলে গ্রামীণ উন্নয়নও ত্বরান্বিত হয় ।

কিন্তু সমস্যা হল মানব উন্নয়নের বিচারে ভারত , বাংলাদেশ সহ বহু উন্নয়নশীল দেশ অনেকটা পিছিয়ে আছে । সম্মিলিত জাতিপুঞ্জের ২০১৮ সালের মানবিক উন্নয়ন প্রতিবেদন অনুযায়ী ২০১৭ সালে ভারতের মানব উন্নয়ন সূচকের মান হল — ০ . ৬৪ । বাংলাদেশের ক্ষেত্রে মান হল — ০ . ৬১ । কিন্তু এই মান মধ্যম শ্রেণির । চীন , ব্রাজিল দেশ মানব উন্নয়নের নিরিখে উঁচু পর্যায়ে রয়েছে । চীনের ক্ষেত্রে এই মান হল ০ . ৭৫ । ব্রাজিল – এর ক্ষেত্রে এই মান হল — ০ . ৭৬ । সারা বিশ্বে ভারতের স্থান হল — ১৩০তম । বাংলাদেশের স্থান হল — ১৩৬তম । ব্রাজিল – এর স্থান হল – ৭৯তম । চীনের ক্ষেত্রে ৮৬তম । স্বাভাবিকভাবে গ্রামীণ উন্নয়ন ত্বরান্বিত করতে পারলে ভারত ও বাংলাদেশের মানব উন্নয়নে অবস্থানগত মানে উত্তরণ ঘটানাে যাবে । কেননা প্রায় ৭০ শতাংশ মানুষ এই দুই দেশে গ্রামে বাস করে । এবং এখনও প্রায় ২৫ শতাংশ গ্রামীণ মানুষ দারিদ্রসীমার নিচে রয়েছে । মানববিকাশ মূলত দাঁড়িয়ে আছে তিনটি স্তম্ভের উপর — ( ১ ) শিক্ষা , ( ২ ) স্বাস্থ্য , ( ৩ ) মাথাপিছু আয় । এই দুটি দেশের সাক্ষরতার হার — ২০১৮ সালে যথাক্রমে ৭৪ . ৪ শতাংশ এবং ৭৩ . ৯ শতাংশ প্রাপ্তবয়স্কদের মধ্যে । স্বাস্থ্যগত মান মধ্যম পর্যায়ের । ভারতের মাথাপিছু আয় — ২০১৮ সালের মানব উন্নয়ন প্রতিবেদন অনুযায়ী ৬৩৫৩ ডলার ( পিপিপি ) । বাংলাদেশের ৩৬৭৭ ( পিপিপি ) । সাক্ষরতার হার , স্বাস্থ্যগত মান এবং মাথাপিছু আয় বাড়াতে হবে । কিভাবে তা হবে ? এ – বিষয়ে ক্ষেত্র ভিত্তিক সমীক্ষা চালিয়ে উপযুক্ত ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে । | উভয় দেশের সরকার শিক্ষা , স্বাস্থ্য ও কর্মসংস্থান প্রকল্পে বিশাল পরিমাণে ব্যয় করছেন । বেসরকারী সংগঠনও এগিয়ে এসেছে , সত্য । মানববিকাশের পথে যে – সকল বাধাবিপত্তি এখনও রয়েছে সে – সকল ব্যাপারে বঙ্গবন্ধু রিসার্চ অ্যান্ড কালচারাল ফাউন্ডেশন ’ ক্ষেত্রভিত্তিক সমীক্ষা চালিয়ে উভয় দেশের , বিশেষ করে বাংলাদেশ ও পশ্চিমবঙ্গের শিক্ষা , স্বাস্থ্য ও আয়গত মান বাড়াতে সক্রিয় ভূমিকা নিতে পারে । বাংলাদেশ থেকে সমাগত অতিথিবৃন্দ এবং পশ্চিমবঙ্গ ও অনান্য রাজ্যের কবি , সাহিত্যিক , সাংবাদিক , সমাজসেবী ও শুভানুধ্যায়ী ব্যক্তিবর্গ উল্লিখিত ভূমিকায় সক্রিয় অংশগ্রহণ করে বর্তমান সম্মেলন সার্থক করে । বিশিষ্ট বিদ্বজনেরা – সুকেশ কুমার মণ্ডল , সম্পাদক ( ভারত ) ( শিক্ষারত্ন সম্মানিত , পশ্চিমবঙ্গ ) ( রাষ্ট্রপতি সম্মানিত ঔপন্যাসিক ও কবি ) ,হারুন রশিদ সাগর , ( সভাপতি , মায়ের আঁচল পত্রিকা ও সাংবাদিক ) ,ড . শচীনন্দন সাউ , অর্থনীতি বিভাগীয় প্রধান , প্রাক্তন , বিদ্যাসাগর বিশ্ববিদ্যালয় হাজী মহম্মদ শাহজাহান আলী , ( মুক্তিযােদ্ধা এবং লেখক , বাংলাদেশ ) ,ড . পিনাকী রঞ্জন দাস , অর্থনীতি বিভাগীয় প্রধান , বিদ্যাসাগর বিশ্ববিদ্যালয় জাহ্নবী জাইমা , ( লেখিকা , বাংলাদেশ ), ড. লুৎফর রহমান বিশিষ্ট শিল্প বিজ্ঞানী বাংলাদেশ ড. জ্যোতির্ময় রায় চৌধুরী অধ্যাপক আন্দামান ,ড. লায়েক আলী খান প্রাক্তন অধ্যাপক বাংলা বিভাগীয় প্রধান বিদ্যাসাগর বিশ্ববিদ্যালয় সহ আরও বিশিষ্ট জনেরা উপস্থিত ছিলেন।

Below Article Banner Area

About Desk

Check Also

JIS Group organizes free of cost vaccination drive for everyone

JIS Group’s free-of-cost onsite vaccination drive has started today at Narula Institute of Technology campus …

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Bottom Banner Area